গানের স্বরলিপি

নদীর পানি

আঁধারের বুক চিরে- টাইফুন

নদীর পানি.........
কত দূরে যাওরে তুমি বহিয়া
নাই ঠিকানা নাইরে বাড়ী
কত নগর যাওরে ছাড়ি
ও কুলেতে বইয়া।


জনম জনম যাওরে তুমি
এপার ওপার করে
তোমার কত দুঃখরে নদী
দুকুল থাকে ভরে
তোমার জীবন চলেরে নদী
পানি বুকে লইয়া।


শহর নগর ছাড়িয়া যাও
উজান ভাটির খেলা
এই না সময় থাকরে কাছে
দূরে সন্ধ্যা বেলা
তোমার সকাল নাইরে বকাল
চলা থাকে বইয়া।


কথা: গাজী নয়ন ইসলাম
সুর: নওসাদ মাহফুজ

আমরা সবাই এক

আঁধারের বুক চিরে- টাইফুন

আমরা সবাই এক নতুন দিনের
স্বপ্ন বুকে পথ পাড়ি দিতে চাই
যদিও রবে না জানি পুষ্পে সাজানো পথ
রবেই রবে কন্ঠকময়।


বাধার পাহাড় গুলো মাড়িয়ে মোরা
মুক্তির মাঞ্জিলে হব আগোয়ান
আল কোরানের আলো ছড়িয়ে মোরা
ভেঙে দেব বাতিলের শুত আয়োজন 
আমাদের ধমনীতে বিজয়ের উল্লাশ
পরাজয় পাবে নাকো ঠাই।


জালিমের হাত যত সামনে আসুক
আমরাই প্রতিরোধ গড়বো আবার
মানুষের মন গড়া মন্ত্র ভেঙে
আনবোই সোনালী সে দিন রাশেদার
আমাদের বুক জুড়ে স্বপ্ন আঁকা তাই
আল্লার রাজ শুধু চাই।

 

কথা ও সুর: আব্দুস সালাম

মনের কোনে

আঁধারের বুক চিরে- টাইফুন

মনের কোনে জায়গা করে
ভুলতে পারিনা তোমায়
হে রাসুল তুমি শুয়ে আছ মদিনায়।

 

নব ভুবনে তোমায় ভুলে
গড়েছে জীবন যারা
সেই জীবনে সঠিক পথের
পাইনি দিশা তারা
তোমার দোয়া জানি
তাদের তরে নয়।

 

আঁকাবাকা পথ পাড়ি দিয়ে
পৌছাতে চাই মাঞ্জিলে
আবার দিনে হে প্রিয় মোর
যেওনা কো ভুলে।

 

জাহেলিয়াতের আধার কেটে
গড়েছ সুখের সমাজ
তুমি বিহীন এ সমাজে
কেউ তো নেই সুখে আজ
তাই ব্যাথিত হৃদয়েতে
স্বরছে এ বিশ্বময়।

 

কথা ও সুর: নাজমুল কবির

ওগো মুজাহিদ

আঁধারের বুক চিরে- টাইফুন

ওগো মুজাহিদ চলো কাফেলায়
শহীদেরা ডাকে তোমায় ।

 

তোমরা কি দেখনা
কাশ্মীর ফলিস্তিনি
ইরাক আর ফলিস্তিনি
শশিুদরে রক্তে হয়েছে রঙনি
তবুও তারা পায়নাকো ভয় ।

 

তোমরা কি শোনোনা
মায়েদের আহাজারী
দুগ্ধ শশিুর লাশ
বুকে জড়ে ধরি
অসহায় হয়ে ডাকে তোমায়।

 

কথা ও সুর: শাওন আহমেদ মুকুল

আল্লাহ তুমি সৃষ্টকিারী 

আঁধারের বুক চিরে- টাইফুন

আল্লাহ তুমি সৃষ্টকিারী 
তুমি পালন কারী
তুমি প্রভু লালন কারী
তুমি অন্তর যামী ।

 

তোমার দয়ায় নদী চলে
সাগর বহমান 
তোমার দয়ায় চন্দ্র তারা
নত্যি চলমান
তোমার রহম পয়েে প্রভু
ও ও ও ও
আমরা বেচে আছি । 

 

তোমার পথে চলি যেন
ওগো দয়াময়
সত্য ও সঠিক পথে 
রাখিও সদয়
তোমার পথে জীবন মরণ
সপে যে দিয়েছি।  

 

কথা ও সুর: আব্দুল্লাহ্ আল কাফী

ছয়টি ঋতুর খেলা

নীল প্রজাপতি - সসাস

গান: ছয়টি ঋতুর খেলা
কথা: মতিউর রহমান মল্লিক
সুরঃ মাহফুজ বিল্লাহ শাহী

 

কোন দেশেতে পাবিরে তুই

ছয়টি ঋতুর খেলা
ও ও ও ও ও ও- - - - - হো হো হো
গ্রীষ্ম বর্ষা শরৎ শেষে
হেমন্ত শীত বসন্তেরই মেলা
সে আমার এই বাংলাদেশই
সজিব সুজলা শষ্য সুফলা
মন মাতানো প্রাণ জুড়ানো
দেশ চির শ্যামলা রে ॥

 

বুকের ভেতর লুকিয়ে রাখে
লতিয়ে থাকা হাজার নিবিড় নদী
জারি সারি ভাটিয়ালীর
সেই নদীরা বয়রে নিরবধী
মাঝ দরিয়ায় হাল ঘুরিয়ে
মন মাঝিরা পাল উড়িয়ে
দিক হতে দিক দিগন্তে যায়
ভাসিয়ে সুখের ভেলা ॥

 

সকাল নামে গাছের পাতায়
শিশির কনা ধুয়ে ধুয়ে ঐ
ছড়িয়ে পড়ে আলোর পাখি
ঘর বাড়ি মাঠ হৃদয় ছুয়ে ঐ
বয়রে হাওয়া নীড় নাচিয়ে
ফুল ফসলের ক্ষেত মাতিয়ে
সুনীল আকাশ গান গেয়ে যায়
রাঙিয়ে গোধুল বেলা ॥
 
বাঁশ বকুলের এ দেশ আমার
তাল তমালের এ দেশ আমার ওগো
জগত সেরা এ দেশ আমার
একটি মহান সবুজ খামার ওগো
তেপান্তরের মাঠ পেরিয়ে
হিজলতলীর ঘাট পেরিয়ে
ঝড়ের আকাশ নেয় উড়িয়ে
খড়ের বিচঞ্চলা ॥