গানের স্বরলিপি

এই হৃদয়ের

বিকল্প সাহিত্য সাংস্কৃতিক সংসদ

এই হৃদয়ের মনি কোঠায়
লিখেছি সে নাম
যার উছিলায় আল্লাহ দিলেন
দুনিয়া তামাম ।

 

আ..আ...আ....

চরিত্রের পূর্ণতা দানে
এলেন তিনি ধরায়
খোদাভীতির বীজ বুনে দিয়ে
হৃদয় দিলেন ভরায়
ফেরশতারা পাগল পারা
জানায় তারে সালাম ।

 

আ..আ...আ....

মূর্তি পূজার ভিত ভেঙ্গে দিতে
তার আগমন বাণী
বাদ্য যত ভাঙ্গতে সবই তো
এলেন তিনি জানি
মানবতার জন্য তিনি
রাহমাতি পয়গাম ।

 

কথা ও সুর: আব্দুশ শাকুর তুহিন
 

উড়ে গেছে গানের পাখি

বিকল্প সাহিত্য সাংস্কৃতিক সংসদ

উড়ে গেছে গানের পাখি
দূর অজানার দেশে
আমি এখন একলা কাঁদি
চোখের জলে ভেসে


ও....ও...ও.....

সাধের পাখি চায়না যে আর
বন্দি খাঁচায় থাকতে
সাধ্য কি আর আছে কারো
আপন করে রাখতে
পাখিরে.......
মায়ার জালে বেঁধে আমায়
পালিয়ে গেলি শেষে

 

ও পাখি তুই কোথায় গেলি
আয়না ফিরে ঘরে
তোর বিরহে কাঁদি আমি
একলা বারে বারে
পাখিরে.........
তোর স্মৃতি সব আজো আছে
গানের ভাষায় মিশে।
 

কথা: তৌফিক মুহাম্মদ
সুর: ইউসুফ বকুল

ওগো মালিক সাঁই

বিকল্প সাহিত্য সাংস্কৃতিক সংসদ

ওগো মালিক সাঁই
এই ভূবনে সবই ফাঁকি
তোমার দেখা চাই।

 

সোনার পাখি ধরতে গিয়ে
ব্যাস্ত ছিলাম স্বপ্ন নিয়ে
রঙ্গিন ঘুড়ি উড়ছে শুধু
সামনে মরু দেখছি ধুধু
তবু ছুটে যাই (আমি)।

 

উড়ছে বিমান ঘুরছে কলের
ঐ যে কত চাকা
তবু কেন জীবন আমার
একে বারেই ফাঁকা।

 

ময়না যেদিন উড়াল দেবে
কে আর আমার বন্ধু হবে
সেই দরদী হয়নি চেনা
গাড়ির টিকিট হয়নি কেনা
পথের কড়ি নাই (আমার)।

 

কথা: মাহফুজুর রহমান আখন্দ
সুর ও শিল্পী: আশরাফুল ইসলাম

ও আল্লাহ ও আল্লাহ

বিকল্প সাহিত্য সাংস্কৃতিক সংসদ

ও আল্লাহ ও আল্লাহ ও আল্লাহ ও আল্লাহ
তুমি ছাড়া নেই কোন মাবুদ খোদা
তন্দ্রা নিদ্রাহীন জাগ্রত সদা
তুমি চিরঞ্জীব তুমিই মহান
তোমার হাতেই আছে যত ক্ষমতা


তোমারই হুকুম ছাড়া চলেনা কিছু
সুপারিশ অধিকার শুধু তোমারই
বিগত ভবিষ্যত অগ্র পিছু
নখদর্পনে যত আলো আঁধারী
 
তোমার জ্ঞানের নেই সীমা পরিধি
আকিল আলিম তুমি সর্বদাতা


মহাবিশ্বের শুধু তুমি অধিপতি
নিপুণ হাতে কর সবই চালনা
সাগর আর জমিনের গতি ও প্রকৃতি
কি দারুণ শিল্পী অবতারণা
সিজদাবনত হয়ে তাইতো বলি
শ্রেষ্ঠ মুনিব তুমি তুমি বিধাতা ।

 

কথা ও সুর : আব্দুল ওয়াদুদ

গভীর রজনী জেগে

বিকল্প সাহিত্য সাংস্কৃতিক সংসদ

গভীর রজনী জেগে
খুঁজি যে তোমায় আবেগে
পরশ পাওয়ার মত
দাও প্রেম দাও দয়াময় ।

 

রাত ফুরিয়ে হয় যেন ভোর
খুলে দাও খুলে দাও
পরম সে দোর
আমার হৃদয়ে খরা
নিত্য পাপে যে ভরা
তোমার প্রেমের শুধা
দাও ঢেলে দাও দয়াময় ।

 

চোখ গড়িয়ে ঝরে যেন জল
তোমাকে পাবো গো প্রভু
এই মনোবল
আছি যে তোমার ধ্যানে
নিত্য সদাই জ্ঞানে
তোমার প্রেমের শুধা
দাও ঢেলে দাও দয়াময় ।

 

কথা ও সুর: ওবায়দুল্লাহ তারেক

একটি গান লিখেছি

বিকল্প সাহিত্য সাংস্কৃতিক সংসদ

একটি গান লিখেছি তোমার জন্য
ওগো প্রিয় মা জননী
কতদিন হয়ে গেল দেখিনি মাগো
তোমার ঐ মধু মুখ খানি
মাগো মা ওগো মা
কেন ঝরে চোখের পানি
মাগো মা ওগো মা
আজো ঝরে চোখের পানি ।

 

দুহাত আজি খুঁজে ফেরে
তোমার আঁচল ছোঁয়া
হৃদয় ফ্রেমে বাধা ছবি
চোখের জলে ধোয়া
আঁধার রাতে স্বপ্নে শুধু
দেখি ঐ মধু মুখখানি ।

 

অবুঝ হৃদয় আজ অসহায়
হরিয়ে তোমায় মাগো
স্মৃতির জালে জড়িয়ে আমায়
কোথায় তুমি থাক
তুমিহীনে এই শুন্য ঘরে
নেই আর কোন সুখ জানি।

 

কথা: আবরার হোসাইন রাজীব
সুর: ওবায়দুল্লাহ তারেক